পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি: খুলনার পাইকগাছায় উপজেলা প্রশাসন ও পৌর কর্তৃপক্ষের নির্দেশ উপেক্ষা করে যাতায়াতের পথে পাকা প্রাচীর নির্মাণ করা হচ্ছে। ফলে ১০টি পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।
পাইকগাছা পৌরসভা ৫ নং ওয়ার্ডে মঙ্গলবার সকালে আবারও আবু বকর গাজীর ছেলে ইউনুছ গাজী চলাচলের রাস্তার মাঝখানে নিজ জমি দাবী করে প্রাচীর নির্মান করতে থাকে। গত ৩০ আগস্ট আরও একবার পাকা প্রাচীর তৈরি করতে যায়। শরীকরা কাজ বন্ধের জন্য পৌর মেয়র ও উপজেলা প্রশাসনের নিকট অভিযোগ করেন। সে অনুযায়ী প্যানেল মেয়র ও উপজেলা প্রশাসন মৌখিকভাবে কাজ বন্ধ করে দেয়। কিন্তু ইউনুছ গাজী সে নির্দেশ উপেক্ষা করে মঙ্গলবার আবারো সেখানে কাজ করতে যায। এ সময় পৌর কর্তৃপক্ষ নোটিশ দিয়ে কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন। জানা যায়, আবু বকর গাজীর চার ছেলে দেড় বিঘা জমি মালিক। বড় ছেলে রাস্তার পাশের অংশে বসবাস করেন। অন্যদের জন্য রাস্তা নির্মিত হয়। যেখানে শরীক তিন ভাই বসবাস করেন। যারা হলেন, আলমগীর কবির সবুজ, আব্দুল আজিজ সরদার ও আসলাম পারভেজ। এর নিকট বিক্রি করে দেয়। তারা প্রায় ১৫ বছর ধরে যাতায়াত করছে। প্যানেল মেয়র শেখ মাহবুবর রহমান রঞ্জু ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহরিয়ার হক ঘটনাস্থলে পৌছে কাজটি বন্ধ করে দিলেও তারা কাজ অব্যাহত রাখার চেষ্টা করায় তা বন্ধ করা হয়েছে বলে তারা জানান। এ বিষয় মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর জানিয়েছেন, যাতায়াতের রাস্তা বন্ধ করা কারোর অধিকার নেই। নোটিশ করে কাজ বন্ধ করে দিয়েছি।

পাইকগাছার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাস্ক বিতরণ
পাইকগাছা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পর স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এ মাস্ক বিতরণ করা হয়। মঙ্গলবার সকালে বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও শিক্ষা কর্মকর্তাদের মাধ্যমে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাস্ক বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) মোঃ শাহরিয়ার হক, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ শাহাদাৎ হোসেন বাচ্চু, ইউপি চেয়ারম্যান কওছার আলী জোয়াদ্দার, গাজী জুনায়েদুর রহমান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জয়নাল আবদীন, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আছাদুজ্জামান। এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালিদ হোসেন সাংবাদিক ও মুক্তিযোদ্ধা সহ বিভিন্ন সুধীজনদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেন।

আপনার মতামত দিন