আবু সাঈদ, কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা): সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে রুবিনা খাতুন (২০) নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগে স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত গৃহবধূ উপজেলার কুশুলিয়া ইউনিয়নের ঠেকরা গ্রামের শহিদুল ইসলামের মেয়ে। এঘটনায় পুলিশ নিহত ওই গৃহবধূর স্বামী নাজিম গাজীকে (২৫) আটক করেছে।
নিহত গৃহবধূর চাচা সামিদুল ইসলাম জানান, কয়েকবছর আগে উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের আব্দুল খালেক গাজীর ছেলে নাজিম গাজীর (২০) সাথে ভাতিজী রুবিনা খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতো।
বুধবার রুবিনা খাতুনকে শারীরিক নির্যাতন করে জোরপূর্বক ঘুমের ওষুধ সেবন করায় স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন। এরপর রাতে রুবিনাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।
তিনি আরও বলেন, বুধবার গভীর রাতে রুবিনার স্বামী নাজিম গাজী তাদের ভাতিজী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে খবর দেয়।
পরবর্তীতে থানার উপ-পরিদর্শক মনির তরফদার ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সুরোতহাল রিপোর্ট তৈরি করে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেন।
কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা জানান, এঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী নাজিম গাজীকে গ্রেফতার করে জেলা কারাগারে প্রেরণ করেছে।

কালিগঞ্জে ১ কেজি গাঁজাসহ ব্যবসায়ী আটক
কালিগঞ্জে পুলিশের অভিযানে ১ কেজি গাঁজাসহ আব্দুস সাত্তার গাজী (৩২) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক হয়েছে। তিনি উপজেলার বিষ্ণুপুর গ্রামের মৃত শহিদুল ইসলামের ছেলে।
থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে থানার উপ-পরিদর্শক মনির তরফদার ও সহাকারী উপ-পরিদর্শক মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ চালতেতলা এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনাকালে ১ কেজি গাঁজাসহ ব্যবসায়ী সাত্তারকে আটক করে। এব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে নিশ্চিত করেন তিনি।

কালিগঞ্জে পুকুরে ওযু করার সময় পানিতে পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু
এশার নামাজ পড়ার উদ্দেশ্যে মসজিদের পুকুরে ওযু করার সময় পানিতে পড়ে আব্দুল গণি খান (৫৫) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের উত্তর রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত ছানাউল্লাহ’র ছেলে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের ন্যায় বুধবার রাতে আব্দুল গণি এশার নামাজ আদায়ের জন্য বাড়ির পাশে অবস্থিত মসজিদের পুকুরে ওযু করতে যান। এসময় তিনি পানিতে পড়ে তলিয়ে যান। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে রাত সাড়ে ১১ টার দিকে মসজিদের পুকুর থেকে তার ভাসমান মৃতদেহ উদ্ধার করে স্থানীয়রা।
কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। কারও কোন অভিযোগ না থাকায় মৃতদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

আপনার মতামত দিন